খেলনার লোভ দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ৯ বছরের শিশুকে যৌন হেনস্তা, কাঠগড়ায় সিভিক ভলান্টিয়ার

বিপ্লব দত্ত, কৃষ্ণনগর: নানারকম প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে যৌন হেনস্তা করা হয় ৯ বছরের শিশুকে! এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ উঠল এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বিরুদ্ধে। ওই নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ারকে গ্রেপ্তার করেছে।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ওই সিভিক ভলান্টিয়ারের (Civic Volunteer) নাম সুপ্রিয় পাল। বয়স ৩০। তার বাড়ি নদিয়ার চাকদহ থানার ঘেটুগাছি গ্রাম পঞ্চায়েতের দিঘরা গ্রামে। সিভিক ভলান্টিয়ার হিসেবে চাকদহ থানায় কর্মরত সুপ্রিয়। ওই গ্রামেরই বাসিন্দা ৯ বছরের এক নাবালিকার বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে যাতায়াত ছিল তার। সুপ্রিয়কে মামা বলে ডাকত ওই নাবালিকা। দীর্ঘদিনের পরিচয়ের সুবাদে সুপ্রিয়র বাড়িতেও অবাধ যাতায়াত ছিল ওই নাবালিকার। সিভিল ভলান্টিয়ার হওয়ার দরুন ওই নাবালিকার বাড়ির লোকজনও যথেষ্ট বিশ্বাস করে ফেলেছিলেন সুপ্রিয়কে। সেই বিশ্বাসকে কাজে লাগিয়েই নাবালিকাকে যৌন হেনস্তা করে সুপ্রিয় বলে অভিযোগ।
[আরও পড়ুন: রামপুরহাট এবং বিধানসভার অশান্তি নিয়ে উদ্বেগ, মুখ্যমন্ত্রীকে মুখোমুখি আলোচনায় ডাক রাজ্যপালের]
নাবালিকা পরিবারের অভিযোগ, “কখনও লজেন্স,কখনও বা নানা ধরনের খেলনা কিনে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ওই নাবালিকাকে তার বাড়ি নিয়ে গিয়ে যেত সুপ্রিয়। এভাবেই দিনের পর দিন যৌন হেনস্তা করা হয় তাকে। সুপ্রিয়র বাবা বিশেষভাবে সক্ষম। তার মায়ের আবার মানসিক সমস্যা রয়েছে। ফলে ছেলের আচরণের দিকে বিশেষ নজর দিতে পারেন না তাঁরা। এই সবকে হাতিয়ার করেই নিজের যৌন চাহিদা মিটিয়ে যায় সুপ্রিয়। কখনও কোথাও বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার নাম করেও ওই নাবালিকার উপর যৌন অত্যাচার করা হত বলে অভিযোগ।
প্রায় মাস তিনেক ধরে এই ধরনের কাজকর্ম চালিয়ে যাওয়া সত্ত্বেও বিষয়টি ওই নাবালিকার পরিবার জানতে পারেননি। তবে কয়েকদিন আগে নির্যাতিতা নিজের দূর সম্পর্কের এক দিদিকে পুরো ঘটনা খুলে বলে। এরপর বিষয়টি নাবালিকার মা-বাবার কানে যায়। সব ঘটনা জানতে পেরে বাড়ির লোকজন সোমবার রাতে থানায় সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল গভীর রাতে চাকদহ থানার পুলিশ সুপ্রিয় পালকে গ্রেপ্তার করে। আজ, মঙ্গলবার তাকে কল্যাণী মহকুমা আদালতে হাজির করা হয়। বিচারক অভিযুক্তকে জামিন দেননি।
[আরও পড়ুন: বগটুই কাণ্ড: IC ও দুই স্বজনহারাকে জেরা সিবিআইয়ের, মিলল চাঞ্চল্যকর তথ্য]
এদিন কল্যাণীর জেএনএম হাসপাতালে নাবালিকার শারীরিক পরীক্ষা করানো হয়েছে। যদিও অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে। তার বক্তব্য, “আমি বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান। মায়ের মানসিক সমস্যা রয়েছে। বাবা শারীরিক দিক থেকে বিশেষভাবে সক্ষম। সংসারের সমস্ত দায়িত্ব আমার উপর। নিজের কাজ ও সংসার সামাল দিতেই আমি হিমশিম খাই। আমি এই ধরনের কোনও খারাপ কাজ করিনি। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।”

Source: Sangbad Pratidin

Related News
হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে ধাক্কার পরই সিবিআই দপ্তরের উদ্দেশে রওনা পার্থর!

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে ধাক্কা খাওয়ার পরই সিবিআই দপ্তরের উদ্দেশে রওনা দিলেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ Read more

ঔরঙ্গজেবের সমাধি ধ্বংসের হুমকি রাজ ঠাকরের দলের! বাড়ানো হল নিরাপত্তা

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধ্বংস করে দেওয়া হতে পারে মুঘল সম্রাট ঔরঙ্গজেবের (Aurangzeb) সমাধি। এই আশঙ্কায় উদ্ধব ঠাকরের সরকার নিরাপত্তা Read more

মেয়ের জন্ম দেওয়ায় স্বামীর অত্যাচার, আত্মহত্যার চেষ্টা বধূর, বাঁচালেন এক মহিলাই

ধীমান রায়, কাটোয়া: ভালবেসে প্রেমিকের হাত ধরে বাড়ি ছেড়েছিলেন তরুণী। বিয়ের বছর দেড়েকের মধ্যেই মোহভঙ্গ। কন্যাসন্তানের জন্ম দেওয়ায় স্বামীর কাছে Read more

ভারতীয় ক্রিকেটে বড় চমক, দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজেই কোচ হচ্ছেন লক্ষ্মণ!

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শীঘ্রই ভারতীয় দলের কোচের হটসিটে বসতে চলেছেন ভিভিএস লক্ষ্মণ (VVS Laxman)! সব ঠিক থাকলে আসন্ন দক্ষিণ Read more

গ্ল্যামারের নেশায় কি বেপরোয়া হয়ে উঠছেন উঠতি নায়ক-নায়িকারা? মত জানালেন টলি তারকারা

স্টাফ রিপোর্টার: মফস্বল বা কখনও বা গাঁ-গঞ্জের আটপৌরে পরিবেশ ছেড়ে একেবারে মহানগরের ঝাঁ-চকচকে আলোকবৃত্তে, যেখানে পদে পদে পদস্খলনের হাতছানি। অনেকেই Read more

যুদ্ধে খোয়া গেছিল দুই পা, ওয়েলসের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করলেন সেই সেনা কর্মী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শারীরিক ভাবে সক্ষম কিন্তু আদতে অক্ষম, শারীরিক ভাবে অক্ষম কিন্তু আসলে সক্ষম। এ যে কথার কথা Read more