শেষ রূপা, স্বপনের মেয়াদ, এপ্রিল থেকে রাজ্যসভায় আর থাকবেন না বাংলার কোনও বিজেপি সাংসদ

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: এপ্রিলেই বদলে যাবে রাজ্যসভার (Rajya Sabha) হিসেব-নিকেশ। ২৪ এপ্রিলের পর বাংলা থেকে বিজেপির আর কোনও প্রতিনিধিত্ব থাকবে না রাজ‌্যসভায়। ওই দিনই রাজ‌্যসভায় সদস‌্যপদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে বাংলার দুই মনোনীত সাংসদ বিজেপির রূপা গঙ্গোপাধ্যায় (Rupa Ganguly) ও স্বপন দাশগুপ্তের (Swapan Dasgupta)। তাঁদের কেন্দ্র সরকার তথা বিজেপি মনোনীত সদস্য করে ফের রাজ্যসভায় আনবে, তেমন সম্ভাবনাও ক্ষীণ বলেই বিজেপি সূত্রে খবর। বাংলা থেকে আবার নতুন কাউকে রাজ্যসভার মনোনীত সদস্য হিসেবে বিজেপি নিয়ে আসবে কিনা, সে বিষয়টিও এখনও নিশ্চিত নয়।
রাজ্যসভার সাংসদ হিসেবে রূপা নিজের কার্যকালের প্রায় ছ’বছরের মেয়াদ সম্পূর্ণ করতে পারলেও স্বপনবাবু অবশ্য মাঝে বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। ভোটে পরাজিত হওয়ার পরে তাঁকে গত বছর জুনে আবার মনোনীত সদস্য হিসেবে রাজ্যসভায় নিয়ে আসে বিজেপি। নিজেদের কার্যকালের মেয়াদে এই দুই সাংসদকেই বাংলার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রাজ্যসভায় সরব হতে দেখা গিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের মেয়াদ শেষের পরে রাজ্যসভায় বাংলার (West Bengal) বিষয়ে বিজেপির পক্ষ থেকে কথা বলার কেউ থাকবে না। প্রসঙ্গত, রাজ্যসভায় বাংলার ১৬টি আসন থাকলেও তাতে বর্তমানে বিজেপির কোনও জায়গা নেই। ১৬ আসনের মধ্যে ১৩টি আসন রয়েছে তৃণমূল  কংগ্রেসের (TMC) দখলে। বাকি তিন আসনের মধ্যে দু’টি কংগ্রেসের ও একটি সিপিএমের দখলে।
[আরও পড়ুন: বগটুই কাণ্ডের রেশ বিধানসভায়, তৃণমূল-বিজেপির হাতাহাতিতে নাক ফাটল বিধায়কের, ভাঙল চশমাও]
বস্তুত, চলতি বছর জুড়েই পালটাতে থাকবে হিসেব-নিকেশ। সেইসঙ্গে রাজনৈতিক সমীকরণও। এপ্রিল মাসে রাজ্যসভার ১৮ জন সাংসদ অবসর গ্রহণ করতে চলেছেন। তার মধ্যে কংগ্রেসের পাঁচ সাংসদও রয়েছেন। এপ্রিল মাসেই রাজ্যসভায় কংগ্রেসের সদস‌্য সংখ্যা ৩৪ থেকে ২৯ হবে। কংগ্রেসের সংখ্যা কমলেই চলতি বাজেট অধিবেশনের পরের বাদল অধিবেশনে রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতার পদ তাঁদের হাতছাড়া হওয়ার সম্ভাবনা।
তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই সমাজবাদী পার্টি, আম আদমি পার্টি ও বাকি বিরোধীদের সঙ্গে নিয়ে রাজ্যসভায় অ-বিজেপি, অ-কংগ্রেসি আলাদা ‘ব্লক’ তৈরি করার তোড়জোড় চলছে। অবশ্য বছরের শেষে কংগ্রেসের রাজ্যসভার সদস‌্য সংখ্যা বর্তমান ৩৪ থেকে বেড়ে ফের ৩৬ হতে পারে।
[আরও পড়ুন: দেগঙ্গায় খেত থেকে বধূর অর্ধনগ্ন দেহ উদ্ধার, মদ্যপানের পর ধর্ষণ করে খুন? ঘনাচ্ছে রহস্য]
প্রসঙ্গত, চলতি বছরের রাজ্যসভা থেকে মোট ৭৭ জন সাংসদ অবসর নেবেন। তার মধ্যে সাতজন মনোনীত সদস্যও আছেন। আগামী ৩১ মার্চ এই সাংসদদের একসঙ্গে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য নিজের বাসভবনে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডু। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন তৃণমূলের রাজ্যসভার মুখ্য সচেতক সুখেন্দুশেখর রায়। অনুষ্ঠানে গান গাইবেন তৃণমূলের দোলা সেন, বিজেপির রূপা গঙ্গোপাধ্যায়, ডিএমকের ত্রিরুচি শিবা, আপের সঞ্জয় সিং। গিটার বাজাবেন রাজ্যের তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন।

Source: Sangbad Pratidin

Related News
‘আমি নেই, ৪০% ভোট পেয়ে দেখান’, বাংলা ছাড়ার আগে সুকান্ত-শুভেন্দুদের চ্যালেঞ্জ দিলীপের

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: “তাঁদের ইচ্ছা পূর্ণ হয়েছে। আমি তো বাংলার দায়িত্বে নেই। এবার পার্টিটাকে জিতিয়ে দেখান। ৪০ শতাংশ ভোট পেয়ে Read more

করতে হবে না কোনও কাজ, থাকবে দেখভালের লোকও! জেলে কী কী সুবিধা পাবেন চৌটালা?

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হরিয়ানার (Hariyana) প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমপ্রকাশ চৌটালাকে (Om Prakash Chautala) ৪ বছরের কারাবাসের সাজা শুনিয়েছে আদালত। আয় Read more

ফের কর্ণি সেনার চোখ রাঙানি, চাপে পড়ে বদলে গেল অক্ষয়ের ‘পৃথ্বীরাজ’ ছবির নাম!

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউডে ফের কর্ণি সেনার দাপট। এবার কর্ণি সেনার রোষের মুখে পড়ে বদলে গেল অক্ষয় কুমারের নতুন Read more

অন্য পেশায় থাকলে ঠাঁই নেই জেলা সম্পাদকমণ্ডলীতে, কঠোর সিদ্ধান্ত আলিমুদ্দিনের

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: হোল টাইমার বা সর্বক্ষণের কর্মীরাই এবার শুধু থাকতে পারবেন পার্টির জেলা সম্পাদকমণ্ডলীতে। চাকরিজীবী বা অন্য পেশায় রয়েছেন এরকম Read more

‘৮ বছরে বাপু ও প্যাটেলের ভারত স্বপ্নের গড়ে তুলতে চেয়েছি’, গুজরাটের সভায় মন্তব্য মোদির

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আর কয়েক মাস। ডিসেম্বরেই গুজরাটের বিধানসভা (Gujarat Election 2022) নির্বাচন। বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। এই অবস্থায় Read more

IPL 2022: ‘এবারের আইপিএলের মতো ভুল গোটা কেরিয়ারে করেনি’, কোহলিকে তোপ শেহওয়াগ-মঞ্জরেকরের

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আরও একটা আইপিএল অতিক্রান্ত। আরও একবার অধরা ট্রফি। আরও একরাশ হতাশা জুটল রয়্য়াল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর সমর্থকদের Read more